হিলি স্থলবন্দর দিয়ে রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্ত ভারতীয় ব্যবসায়ীদের

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পণ্য রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় ব্যবসায়ী সংগঠন। বুধবার ( ৯ জুন) থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। রোববার রাতে রফতানি বন্ধ সংক্রান্ত একটি চিঠির মাধ্যমে বাংলাদেশের হিলির ব্যবসায়ীদের এমন তথ্য দেওয়া হয়েছে।

এদিকে হিলি স্থলবন্দরে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে সীমিত আকারে পণ্য আমদানির সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা।

বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা জানিয়েছিলেন, ভারতীয় ট্রাক-চালকেরা স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। তারা করোনার টিকার সনদও দেখাতে পারছেন না। এতে মঙ্গলবার থেকে করোনার টিকার সনদ ছাড়া বাংলাদেশে ঢুকতে পারবেন না। এতে করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বল্প পরিসরে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে।

কিন্তু ভারতীয় ব্যবসায়ীরা জানান, ভারতীয় ট্রাক চালকদের আগামী মঙ্গলবারের আগে করোনার টিকা দেওয়া সম্ভব হবে না। টিকার সনদ ছাড়াই চালকদের প্রবেশ করতে দিতে হবে। আগের মতোই সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত আমদানি-রফতানি কার্যক্রম চালু রাখতে হবে। অন্যান্য বন্দরে মতো হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি স্বাভাবিক রাখতে হবে।

এ বিষয়ে হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জানান, ভারতে দিনদিন করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। যে কারণে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের সিদ্ধান্ত ছিল—ভারতীয় ট্রাক চালক-খালাসিদের টিকার সনদসহ সব স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে হিলি স্থলবন্দরে পণ্য রফতানি করা হবে।

তিনি বলেন, কিন্তু বারবার বলার পরেও ভারতীয় ট্রাক চালক-খালাসিরা টিকার কার্ড আনছেন না। এদিকে হিলি স্থলবন্দর এলাকায় করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় ভারত থেকে পণ্য আমদানি সীমিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ভারতের এক ব্যবসায়ী বলেন, অন্যান্য ভারতীয় বন্দরে যেভাবে পণ্য রফতানি করা হচ্ছে, এই বন্দরেও সেভাবে আমদানি-রফতানি চালু রাখতে হবে।

আরও পড়ুন: হিলি স্থলবন্দরে সীমিত পরিসরে পণ্য আমদানি 

DMCA.com Protection Status

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *