স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর, ১০ হাজার টাকা জরিমানা | বাংলাদেশ

স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর, ১০ হাজার টাকা জরিমানা | বাংলাদেশ

<![CDATA[

ব্রাহ্মণবাড়িযা সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদে আগামী ৫ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে প্রতিটি নির্বাচনী এলাকায় চলছে শেষ মুহূর্তের প্রচার-প্রচারণার কাজ।

এরই মধ্যে প্রচারকাজ চলাকালে শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউনিয়নের ঘাটুরা নামক স্থানে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান খান টিটুর নির্বাচনী ক্যাম্প অফিস ভাঙচুর করা হয়।

এ ঘটনায় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান খান টিটুর লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে ও ঘটনার সত্যতা পেয়ে হামলাকারী ও সুহিলপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার মহসিন খন্দকারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সুহিলপুর ইউনিয়নের ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান খান টিটু অভিযোগ করে বলেন, ‘সন্ধ্যায় নির্বাচনী প্রচারকাজ চলাকালীন সময় সুহিলুপর ইউনিয়নের বর্তমান মেম্বার মহসিন খন্দকার ও তার সমর্থকরা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার ঘোড়া প্রতীকের নির্বাচনী অফিসটি ভাঙচুর করে। পরে আমি এ নিয়ে লিখিত অভিযোগ করি। আমার অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্যাট। পরে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আরও পড়ুন: নৌকার ভোট সবার সামনে, বিপক্ষে ভোট শূন্য করতে নির্দেশ আ.লীগ নেতার

এ ঘটনায় মহসিন খন্দকার অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, ‘নির্বাচনী প্রচার কাজে বাধা দেওয়া এবং তার অফিস ভাঙচুর করার ঘটনায় আমি অনেকটা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ বিষয়ে আমি রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

এদিকে ঘটনার সত্যতার নিশ্চিত করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাজকুমার বিশ্বাস বলেন, ‘স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযুক্ত ব্যক্তি নির্বাচনী অফিস ভাঙচুরের বিষয়টি স্বীকার করেছে। ফলে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আচরণ বিধিমালা ভঙ্গের দায়ে নির্বাচনী আইন ২০১৬ এর ১৮(গ) ধারায় মহসিন খন্দকারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি তাকে সতর্ক করা হয়।‘

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *