‘স্কুইড গেম’র কপি পাচার করায় মৃত্যুদণ্ড | বাণিজ্য

‘স্কুইড গেম’র কপি পাচার করায় মৃত্যুদণ্ড | বাণিজ্য

<![CDATA[

জনপ্রিয় দক্ষিণ কোরিয়ান নেটফ্লিক্স সিরিজ ‘স্কুইড গেম’র কপি ইউএসবি পোর্টের মাধ্যমে পাচার এবং বিক্রির দায়ে উত্তর কোরিয়ায় একজনকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে পাচারকৃত স্কুইড গেমের কপি ক্রয় করে দেখার দায়ে উচ্চ বিদ্যালয়ের সাত শিক্ষার্থীকে শাস্তি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া।

আমেরিকার সংবাদমাধ্যম রেডিও ফ্রি এশিয়ার (আরএফএ) বরাতে এ তথ্য জানা গেছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত চোরাচালানকারী চীন থেকে স্কুইড গেম সিরিজের একটি কপি সম্বলিত ইউএসবি ফ্ল্যাশ ড্রাইভ বিক্রি করেছিলেন। জানা গেছে, ফায়ারিং স্কোয়াডের মাধ্যমে তার সাজা কার্যকর করা হবে।

সেই সঙ্গে যে শিক্ষার্থী ড্রাইভটি কিনেছিলেন তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এবং অন্য ছয় জন শিক্ষার্থী যারা সিরিজটি দেখেছিলেন তাদের পাঁচ বছরের কঠোর শ্রমের শাস্তি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া শিক্ষক ও স্কুল প্রশাসকদের বরখাস্ত করা হয়েছে এবং প্রত্যন্ত খনিতে বা নিজেদের কাজ করার জন্য নির্বাসিত করা হয়েছে।

আরএফএ জানিয়েছে, বিদেশি মিডিয়া কনটেন্টকে দূরে রাখার জন্য কর্তৃপক্ষের সর্বোত্তম প্রচেষ্টা সত্ত্বেও সিরিজের কপি দেশটিতে ফ্ল্যাশ ড্রাইভ এবং এসডি কার্ডের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে।

আরও পড়ুন: চালকের কমিশন কমিয়েছে ‘পাঠাও’

উত্তর কোরিয়া কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে বিদেশি মিডিয়া কনটেন্ট দেশের বাইরে রাখার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা করে যাচ্ছে।

সাত শিক্ষার্থীর শাস্তি পাওয়ার ফলে এবারই প্রথম কোনো অপ্রাপ্তবয়স্ক কাউকে “প্রতিক্রিয়াশীল চিন্তা ও সংস্কৃতির নির্মূল” এই আইনের আওতায় শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

গত বছর পাস করা এই আইন অনুযায়ী, পুঁজিবাদী দেশগুলি, বিশেষ করে দক্ষিণ কোরিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিডিয়া কনটেন্ট দেখা, রাখা বা বিতরণের জন্য সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। 
 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *