সময়ের সঙ্গে কৌশল পাল্টাচ্ছে প্রশ্নফাঁস চক্র | বাংলাদেশ

সময়ের সঙ্গে কৌশল পাল্টাচ্ছে প্রশ্নফাঁস চক্র | বাংলাদেশ

<![CDATA[

সময়ের সঙ্গে কৌশল পাল্টাচ্ছে প্রশ্নফাঁস চক্রের সদস্যরা। আগে পরীক্ষা চলাকালে ডিভাইসের মাধ্যমে উত্তর দিত চক্র। এখন প্রশ্ন তৈরিতে যারা যুক্ত, তাদের মাধ্যমে ফাঁস করা হচ্ছে প্রশ্ন। প্রার্থীদের প্রশ্ন না দিয়ে পরীক্ষা শুরুর আগে মুখস্থ করানো হচ্ছে উত্তর। পরামর্শ দেওয়া হয় শতভাগ প্রশ্নের উত্তর না দিতে। বিভিন্ন সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটকদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে এ কথা জানিয়েছে পুলিশ।

২০২০ সালে একটি চক্রকে গ্রেপ্তারের পর প্রশ্নফাঁসের অভিনব কৌশলের কথা জানতে পারে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। চক্রটি পরীক্ষা শুরুর পর কেন্দ্র থেকে ডিভাইসের মাধ্যমে দ্রুত প্রশ্ন পাঠাত। পরে কোচিং সেন্টারের অভিজ্ঞ শিক্ষকের মাধ্যমে প্রশ্ন দ্রুত সমাধান করে কেন্দ্র পাঠিয়ে দিত উত্তর।
 

সাইবার পুলিশ সেন্টার অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান বলেন, ২০২০ সাল থেকে একটি চক্র প্রশ্নফাঁসের করে আসছে। তারা নতুন নতুন অভিনব কৌশল করে এই কাজগুলো করে যাচ্ছে। তাদের আমরা গ্রেপ্তারের আওতায় নিয়ে আসছি।

পরীক্ষার হলে ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার বন্ধের পর কৌশল পাল্টায় প্রশ্নফাঁস চক্রের সদস্যরাও। শুরু হয়, প্রশ্ন প্রণয়নে যুক্তদের হাত করার প্রক্রিয়া। চাকরিপ্রত্যাশীদের হাতে প্রশ্ন না দিয়ে পরীক্ষার আগের রাতে বা পরীক্ষার ঠিক আগ মুহূর্তে নির্দিষ্ট স্থানে একত্র করে মুখস্থ করানো হয় উত্তর। সন্দেহ এড়াতে পরামর্শ দেওয়া হয় শতভাগ প্রশ্নের উত্তর না দিতে।

 

আরও পড়ুন:  পাবলিক প্লেসে যৌন হয়রানি শিকার ৮২ শতাংশ নারী

সম্প্রতি আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছে প্রশ্নফাঁস চক্রের পাঁচ সদস্য। আহসানউল্লাহ ইউনিভার্সিটির নেওয়া চাকরির পরীক্ষাগুলোয় কোনো অনিয়ম হয়েছে কি না তারও তদন্ত করছে পুলিশ।

তেজগাঁও বিভাগের ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপপুলিশ কমিশনার ওয়াহিদুর রহমান বলেন, প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় সম্প্রতি ১১ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *