শ্রেণিকক্ষে ফিরছে জার্মানির শিক্ষার্থীরা | আন্তর্জাতিক

শ্রেণিকক্ষে ফিরছে জার্মানির শিক্ষার্থীরা | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

ওমিক্রন সংক্রমণের মধ্যেও শ্রেণিকক্ষে ফিরতে শুরু করেছে জার্মানির প্রাথমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। তবে নিজেদের শ্রেণিকক্ষে প্রবেশের আগে সব শিক্ষার্থী ও শিক্ষক-শিক্ষিকাকে করতে হবে করোনা টেস্ট। পরতে হবে মাস্কও।

দীর্ঘ আলোচনা ও করোনার বর্তমান পরিস্থিতি পর্যালোচনা শেষে অনলাইনে পাঠদানের বদলে প্রাথমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সব শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতেই পাঠদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জার্মান শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে শ্রেণিকক্ষে প্রবেশের আগে নিয়মিতভাবে সব শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের করতে হবে করোনা টেস্ট। পাঠদানের সময় পরে থাকতে হবে মাস্ক।
 

সোমবার থেকে জার্মানির ১৬টি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে আপাতত ৮টি অঙ্গরাজ্যে এ নিয়ম চালু হলেও পরিস্থিতি বিবেচনা করে ধীরে ধীরে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতেই পাঠদান করা হবে বলে জানান দেশটির শিক্ষামন্ত্রী বেটিনা স্টার্ক ভাটসিঙ্গার। দীর্ঘদিন পর শ্রেণিকক্ষে ফিরতে পেরে খুশি শিক্ষার্থীরা।

 

এক শিক্ষার্থী বলেন, সহপাঠী বন্ধুদের সঙ্গে নিজেদের ক্লাসে ফিরতে পেরে দারুণ লাগছে। ভাবতে ভালো লাগছে অনলাইনে আর বসতে হবে না। 

আরও পড়ুন: কাজাখস্তানে মস্কোর ‘বিজয়’ দাবি পুতিনের
 

ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে কারণে পাঠদানে যাতে কোনো বিঘ্ন না ঘটে সেটাতে আমরা সচেষ্ট থাকব। তবে ক্লাস শুরুর আগে স্বাস্থ্যবিধি মানার সাথে সাথে আমরা সপ্তাহে কমপক্ষে তিনবার করোনার টেস্ট করার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মাস্ক পরার বিষয়টিতে বেশ গুরুত্ব দিচ্ছি।

তবে কিছুটা ভিন্ন চিত্র দেখা গেছে রাজধানী বার্লিনের পাশের অঙ্গরাজ্য ব্রান্ডেরবুর্গে।

অঙ্গরাজ্যটির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, সেখানে করোনায় অক্রান্ত হয়েছেন এমন শিক্ষার্থীর সংখ্যা দুই হাজারের বেশি। আর দেশজুড়ে কোয়ারেন্টাইনে আছে এমন শিক্ষকদের সংখ্যা প্রায় সাড়ে তিনশ। দেশটির শিক্ষামন্ত্রী মনে করেন, ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষে ফেরার মাধ্যমে সেই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সক্ষম হবে।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *