যুক্তরাষ্ট্রে হামলার আশঙ্কা | আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রে হামলার আশঙ্কা | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

আগামী ছয় মাসের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে হামলা চালাতে পারে আফগানিস্তানের ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠী (আইএস)। মঙ্গলবার মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পেন্টাগনের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এ দাবি করেন।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো আফগানিস্তানের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে এই তথ্য জানিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

পেন্টাগনের নীতিনির্ধারণ বিষয়ক আন্ডারসেক্রেটারি কলিন কাহল বলেন, আফগানিস্তান এখনো যুক্তরাষ্ট্রের জন্য হুমকি।

গত আগস্টে আফগানিস্তান দুই দশক পর ক্ষমতায় আসে তালেবানরা। তালেবানদের শত্রু এখন আইএস। তাদের ছোড়া আত্মঘাতী বোমা হামলা ও এর দায় স্বীকার, মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর আফগানিস্তানের আইন ব্যবস্থা দুর্বল হয়ে পড়া আইএসের উত্থানের কারণ। আইএস ক্ষুদ্র গোষ্ঠী ও তালেবানদের সদস্যদের লক্ষ্য করে হামলা করছে। তাদের পক্ষে তালেবানদের লড়াই করার সামর্থ্য আছে কিনা এ নিয়ে প্রশ্ন দেখা গেছে।

আরও পড়ুন: ট্রুডোর মন্ত্রিসভায় রদবদল

কাহল বলেন, আমাদের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, তালেবান ও আইএসএস-কে আমাদের জীবন-মরণের শত্রু। তাই তালেবান এখন আইএসএস-কের কাছে অনুপ্রাণিত হচ্ছে। তারা নিজেদের শক্তি বাড়াচ্ছে। আমি মনে করি তারা হামলা চালাতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। ধারণা করছি ইসলামিক স্টেটের কয়েক হাজার সৈন্য রয়েছে।

আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্র আমিন খান মুত্তাকিও ইসলামিক স্টেটের হামলার আশঙ্কা উড়িয়ে দেননি। তিনি বলেছেন, আফগানিস্তানের মাটি থেকে অন্য দেশে হামলা করতে দেওয়া হবে না। 

আফগানিস্তানে তৎপর আইএস-খোরাসান গোষ্ঠীকে নির্মূল করার ইচ্ছা ও সক্ষমতা তালেবান সরকারের আছে কি না, তা মার্কিন গোয়েন্দারা পর্যালোচনা করে দেখছে বলেও জানান কলিন কাহল। 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *