‘ম্যারাডোনা নেই, তা এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না’ | খেলা

'ম্যারাডোনা নেই, তা এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না' | খেলা

<![CDATA[

ম্যারাডোনা নেই। এটা এখনও বিশ্বাস করতে পারেন না লিওনের মেসি। ফুটবল ঈশ্বরের শূন্যতা সব সময় কষ্ট দেয় আর্জেন্টাইন তারকাকে। ম্যারাডোনা বেঁচে থাকতে বৈশ্বিক আসরে জাতীয় দলের হয়ে কোন ট্রফি জিততে পারেননি। এটা সারাজীবনের কষ্ট হয়ে থাকবে তার জন্য। স্প্যানিশ দৈনিক মার্কাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানান মেসি। ম্যারাডোনার কাছ থেকে কিছু শিখতে পারাটা জীবনের সেরা অর্জন তার কাছে।

২৫ নভেম্বর লিওনেল মেসির জন্য কষ্টের একটা দিন। গেল বছর এ দিনেই কাউকে কিছু না জানিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান দিয়াগো ম্যারাডোনা। আজকের লিওনেল মেসি হয়ে ওঠার পেছনে ম্যারাডোনার অবদান অনেক। ফুটবলের চমৎকার সব কৌশল প্রিয় গুরুকে দেখেই যে আয়ত্ব করেছেন লিও। স্বপ্ন ছিলো জাতীয় দলের হয়ে বৈশ্বিক আসরে কোন ট্রফি জিতে ম্যারাডোনার হাতে তুলে দেবেন। কিন্তু চাওয়া আর পাওয়া এক হয়নি। মেসিও পারেননি গুরুকে জীবদ্দশায় ট্রফি উপহার দিতে। এ কষ্ট খুব পোড়ায় মেসিকে।

ম্যারাডোনার প্রয়াণের এক বছর পূর্ণ হওয়ার দিনে স্প্যানিশ দৈনিক মার্কাকে দেয়া সাক্ষাতকারে নিজের কষ্টের কথা তুলে ধরেন মেসি।
পিএসজির তারকা মেসি বলেন, ‘ম্যারাডোনা মারা গেছেন এটা এখনও বিশ্বাস করতে পারিনা আমি। সব সময় মনে হয় এই বুঝি তিনি আমাকে ফোন করলেন। মাঝে মাঝে মনে হয় টিভিতে তাকে দেখছি পুরো ছবিগুলো জীবন্ত মনে হয়। তার মত ফুটবলার পৃথিবীতে আবার কবে আসবে জানিনা। ম্যারাডোনা আমার আদর্শ।‘

আরও পড়ুন: রোনালদোর সঙ্গে মেসিকে তুলনা, ধুয়ে দিলেন ডাচ তারকা 

ম্যারাডোনাকে হারানোর এক বছর পার হয়েছে। অশ্রুসজল মেসি জানান কোপার ট্রফি যদি তার হাতে তুলে দেয়ার স্বপ্নটা অধরাই রয়ে গেল।

মেসি বলেন,  ‘এ বছর যখন আমরা কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতলাম। সবাই উৎসব করছিলো। ২৮ বছর পর জাতীয় দলের শিরোপা। কিন্তু এ দিনটা তিনি আমাদের কাছে দেখতে চেয়েছিলেন। আমরা ম্যারাডোনা বেঁচে থাকতে শিরোপা উপহার দিতে পারিনি। যখন পারলাম তখন তিনি নেই। কোপা আমেরিকা আমরা তাকেই উৎসর্গ করেছি। বিশ্বকাপ বাছাইয়েও ভাল খেলছে আর্জেন্টিনা। আমাদের স্বপ্ন কাতারেও ভাল কিছু করা। তাতে করেও ওপারে ও খুশি হবে ম্যারাডোনা।‘

ম্যারাডোনার মত ফুটবলারকে কোচ হিসেবে পাওয়াটা মেসির জীবনের সেরা অধ্যায় বলে জানান মেসি।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *