ব্যাংক অ্যাকাউন্ট-ল্যাপটপ ফিরে পেলেন সুশান্তর প্রেমিকা রিয়া | বিনোদন

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট-ল্যাপটপ ফিরে পেলেন সুশান্তর প্রেমিকা রিয়া | বিনোদন

<![CDATA[

বলিউডের প্রয়াত সুপারস্টার সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর আলোচনায় আসে তার প্রেমিকা রিয়ার নাম।

সুশান্তের মৃত্যুর পর রিয়ার নামে দায়ের করা হয় মামলা। যার রেশ ধরেই গত এক বছর নিজের সম্পত্তিতে দখল ছিল না তার।

সম্প্রতি ভারতের মাদক মামলা সংক্রান্ত (এনডিপিএস) আদালতর অনুমতিতে রিয়া নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফিরে পেলেন। বাজেয়াপ্ত করা ল্যাপটপ এবং ফোনের দখলও পেলেন প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের প্রেমিকা।

বলিউড সুপারস্টার সুশান্ত সিংহ রাজপুত ২০২০ সালের ১৪ জুন মারা যান। এর পর তার মৃত্যু তদন্ত নিয়ে গোটা দেশে শুরু হয় তোলপাড়। কাঠগড়ায় তোলা হয় সুশান্তের প্রেমিকা রিয়াকে। সুশান্তকে মাদক সরবরাহ করার অভিযোগে এক মাসের হাজতবাসও হয় তার। রিয়া জামিন পেয়েছেন গত ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে।

২০২০ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর মাসে রিয়া চ্যাটার্জির অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। রিয়ার এসব ব্যক্তিগত জিনিস ফিরে পাওয়ার জন্য রিয়াকে করতে হয়েছে আবেদন। তাতে লিখেন, তিনি পেশায় একজন মডেল এবং অভিনেত্রী। নিজের জীবনযাপনের ভার তার হাতে।

তা ছাড়া তার সংসারে এবং কর্মক্ষেত্রে যে মানুষরা কাজ করেন, তাদের বেতনের জন্য টাকা পয়সা তোলা ও জমানোর জন্য নিজের অ্যাকাউন্টগুলোর প্রয়োজন রয়েছে রিয়ার। তার ভাই শৌভিক চক্রবর্তীর যাবতীয় খরচ রিয়াকে সামলাতে হয়। তাই ১০ মাস ধরে তার অ্যাকাউন্টগুলো বাজেয়াপ্ত করে রাখায় রিয়ার জীবনযাপনে অসুবিধা হচ্ছে। এমনই একাধিক কারণের কথা লেখা হয় রিয়ার আবেদনে।

আরও পড়ুন: বিয়ের উপহার পেলেন অঙ্কিতা লোখান্ডে?

ভারতের মুম্বাইয়ের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটার অতুল সারপান্ডে জানিয়েছেন, মামলার তদন্তকারী আধিকারিক ইতোমধ্যেই রিয়াকে তার জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

কিন্তু অন্যদিক থেকে নানা রকম আপত্তি এসেছে। নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) প্রতিনিধি আইনজীবী অতুলের যুক্তি, যেহেতু মাদক-মামলার তদন্ত এখনও শেষ হয়নি, তাই এ মুহূর্তে বাজয়াপ্ত করা অ্যাকাউন্টগুলো ছেড়ে দিলে তদন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। যদিও আদালতের রায়ে শেষ মেশ রিয়ার পক্ষেই দাঁড়ায়।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *