বাসচাপায় নিহত মাঈনুদ্দিন পেল ‘এ’ গ্রেড | শিক্ষা

বাসচাপায় নিহত মাঈনুদ্দিন পেল ‘এ’ গ্রেড | শিক্ষা

<![CDATA[

রাজধানীর রামপুরায় অনাবিল বাসের চাপায় নিহত মাঈনুদ্দিন এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৪ দশমিক ১৭ (এ গ্রেড) পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) ফলাফল প্রকাশ হলে শিক্ষকেরা এ তথ্য জানান। সে রামপুরার একরামুন্নেছা স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল।

ছেলের এমন ফলাফলে কাঁদছিলেন নিহত মাঈনুদ্দিন ইসলামের বাবা আবদুর রহমান। কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, ‘পুত (ছেলে), তোরে আমি ভিক্ষা করে হলেও পড়াইতাম। তোরে নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন ছিল। পড়াশোনা শেষ করে ভালো চাকরি করবি, অভাবের সংসারে হাল ধরবি। কিন্তু আমার সব স্বপ্ন শেষ করে চলে গেলি।’

মাঈনুদ্দিনের ভাই মনির হোসেন সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমার ভাই ছাত্র ভালো ছিল। আমার কাছে আবদার করে বলতো ‘ভাই আমাকে ভালো কলেজে ভর্তি করে দিবা’। আমি বলেছিলাম, দেখি ঢাকা কলেজে ভর্তির জন্য চেষ্টা করবো।

তিনি বলেন, করোনার সময় ঠিকমতো আমার ভাই পড়াশোনা করতে পারেনি। আম্মা রাগ করে ধমক দিয়ে বলতেন, ‘তুই তো ফেল করবি’। মাঈনুদ্দিন বলতো, রেজাল্ট বের হোক, দেইখো কী করি।

আরও পড়ুন: শতভাগ পাস যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে

ব্যাংকে চাকরি করার ইচ্ছে ছিল মাঈনুদ্দিনের। তাই একটা হাসপাতালে রিসিপশনে সাত হাজার টাকা বেতনে চাকরি পেয়েও করেনি বলে জানান তার মা রাশিদা বেগম। লেখাপড়ার পাশাপাশি বাবার দোকানেও সময় দিতো মাঈনুদ্দিন।

গত ২৯ নভেম্বর রাতে রামপুরা বাজার এলাকায় রাইদা পরিবহনের একটি বাসে ওঠার চেষ্টা করলে শিক্ষার্থী মাঈনুদ্দিন ইসলাম দুর্জয়কে বাস থেকে ফেলে দেয় হেলপার। এসময় অনাবিল পরিবহনের একটি বাস তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মারা যায় ওই শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় ঘটনাস্থলে জড়ো হয়ে সড়ক অবরোধ করে উত্তেজিত জনতা। ওই সময় বিক্ষুব্ধ জনতা ৮টি বাসে আগুন দেয়।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *