বাগেরহাটে ডায়াগনস্টিক সেন্টারসহ দুই চিকিৎসকে জরিমানা | বাংলাদেশ

বাগেরহাটে ডায়াগনস্টিক সেন্টারসহ দুই চিকিৎসকে জরিমানা | বাংলাদেশ

<![CDATA[

বাগেরহাটের রামপালে দুই চিকিৎসক এবং এক ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেলে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ, ভঙ্গুর অবকাঠামো এবং লাইসেন্সের মেয়াদ উত্তীর্ণ থাকার অপরাধে রামপাল উপজেলার ফয়লাহাট বাজারস্থ নিউ এপোলো ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আইন বহির্ভূতভাবে নামের পিছনে ডাক্তার লেখা ও ইখতিয়ার বহির্ভূত প্র্যাকটিস করার অপরাধে কামরুন নাহার মাহফুজা নামের এক মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্টকে ১০ হাজার এবং মা মেডিকেল হলের প্রোপাইটর মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট নারায়ণ চন্দ্র মণ্ডলকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

র‌্যাবের সহযোগিতায় বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার আজিজুল কবির ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক হিসেবে এই অর্থ দণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

দণ্ডাদেশ প্রাপ্ত চিকিৎসক কামরুন নাহার মাহফুজা নিউ এপোলো ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করতেন। মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হয়ে ডাক্তার লিখে প্রচার-প্রচারণা, জটিল রোগ দেখা ও নিয়ম বহির্ভূত পরামর্শ প্রদানের অপরাধে র‌্যাব-৬ এর সদস্যরা এই নারী চিকিৎসককে আটক করে।

একই অপরাধে মা মেডিকেল হলের প্রোপাইটর মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট নারায়ণ চন্দ্র মণ্ডলকে আটক করে র‌্যাব সদস্যরা। 
অন্যদিকে নিউ এপোলো ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক মো. মানছুর গা ঢাকা দেওয়ায় তার স্ত্রী হাবিবা সুলতানাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। র‌্যাবের অভিযানের সময় বাগেরহাট সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. সুব্রত কুমার দাস উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, জরিমানার আওতায় আনা ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি কোনো প্রকার নিয়ম কানুন না মেনে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল। একটি কক্ষকে রান্না ঘর ও পরীক্ষাগার হিসেবে ব্যবহার করা হত। সেন্টারে একটি এক্সরে মেশিন থাকলেও মেশিনটি খুবই পুরাতন ও ভঙ্গুর। ১০ ইঞ্চি পুরু দেওয়াল ও এক দরজা বিশিষ্ট কক্ষে এক্সরে মেশিন রাখার কথা থাকলেও কক্ষটির অবস্থা অনেক খারাপ।

আরও পড়ুন: রাজশাহীতে বড়দিনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ

দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত দুই চিকিৎসক দীর্ঘদিন ধরে নিয়ম বহির্ভূতভাবে প্র্যাকটিস করে আসছিল। চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগীদের ঠকিয়ে আসছিল। ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও দুই চিকিৎসককে জরিমানার পাশাপাশি সতর্ক করা হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার আজিজুল কবির বলেন, ভোক্তা অধিকার আইন-২০০৯ এর ৫২ ধারা মোতাবেক দুইজন চিকিৎসকে ৬০ হাজার টাকা এবং একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

র‌্যাব-৬ এর কর্মকর্তা পুলিশ সুপার আল আসাদ মো. মাহফুজুল ইসলাম বলেন, জন মানুষের সুস্বাস্থ্য রক্ষার জন্য র‌্যাব বদ্ধ পরিকর। এর অংশ হিসেবে সুনির্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রামপাল উপজেলার ফয়লাহাট বাজারস্থ নিউ এপোলো ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালানো হয়। সেখানে নানা অব্যবস্থাপনা ও লাইসেন্স না থাকার মত অপরাধ পাওয়া যায়।

এছাড়া দুইজন চিকিৎসককে প্রতারণার আশ্রয় গ্রহণ করে সেবা নিতে আসা রোগীদের ঠকানোর অপরাধের প্রমাণ পাওয়া যায়। এসব অপরাধে চিকিৎসক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে। র‌্যাব-৬ এর এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *