‘বাংলাদেশ নিয়ে ভাবার দরকার নেই’ শাহরিয়ার নাফিসের স্ট্যাটাসে তুমুল ঝড় | খেলা

'বাংলাদেশ নিয়ে ভাবার দরকার নেই' শাহরিয়ার নাফিসের স্ট্যাটাসে তুমুল ঝড় | খেলা

<![CDATA[

বাজেভাবে এবং আগেভাগে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ যাত্রা সমাপ্ত হয়েছে বাংলাদেশের। অথচ টুর্নামেন্ট শুরুর আগে লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের প্রত্যাশার পারদ ছিল সুউচ্চ।

বাংলাদেশের হারে অনেকেই সমালোচনা করছেন। এমন সময়ে পাকিস্তানের ভালো ক্রিকেট খেলা এবং পাকিস্তানিদের বাংলাদেশি ক্রিকেট নিয়ে সমালোচনা নিয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছেন বাংলাদেশের সাবেক ক্রিকেটার শাহরিয়ার নাফিস।

তিনি শুক্রবার (৫ নভেম্বর) তার ভেরিফাইড ফেসবুক আইডি থেকে লিখেন-

‘পাকিস্তান দল এখন যেমন খেলছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। 
কিন্তু পাকিস্তানি কিংবদন্তিদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলতে চাই , স্যার আপনাদের বাংলাদেশ ক্রিকেট নিয়ে ভাবার দরকার নেই।’

আপডেটের এক ঘণ্টার ভেতরেই তার এই স্ট্যাটাসে ২৬ হাজার রিয়াকশন পড়েছে।

এদিকে এমন একটা অপ্রত্যাশিত আসর শেষে দেশের সবচেয়ে সফল ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা ক্রিকেটারদের পাশাপাশি বাংলাদেশের বাজে পারফরম্যান্সের পেছনে দায় দেখছেন ক্রিকেট বোর্ড সংশ্লিষ্টদেরও।

এ নিয়ে বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে বলেন, কিছু ব্যাপার মেলানো প্রয়োজন। সেটা হলো, খারাপ হওয়ার প্রথম দায় অবশ্যই ক্রিকেটারদের। এরপর আর কি কারও দায় নেই? শুধু ক্রিকেটারদের ঘাড়ে চাপিয়ে যদি শেষ করেন, তাহলে মনে রাখবেন, আরও খারাপ সময় অপেক্ষা করছে। প্রমাণ তো আগেও অহরহ দেখা গেছে!

কোনো টুর্নামেন্টে বাজে পারফরম্যান্সের পর সাধারণত অধিনায়ক কিংবা কোচ বদল নিয়মিত চিত্র যে কোনো দলের ক্ষেত্রে। বাংলাদেশের ক্ষেত্রেই এর খুব ব্যতিক্রম আছে তা কিন্তু নয়। এ সম্পর্কে মাশরাফী বলেন, আগের অভিজ্ঞতা থেকে এবারও বলে দেওয়া যায়, এখন সামনে কী হবে। হয়তো কাউকে বাদ দেওয়া হবে, কারও ওপর অদৃশ্য রাগ ঝাড়া হবে, রিয়াদকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দায় এড়ানোর চেষ্টা করা হবে। সমর্থকরা যে ক্রিকেটারকে পছন্দ করছে না, তার ওপর ঝাল মিটিয়ে সমর্থকদের শান্ত করা হবে। সাংবাদিক ভাইদের নানা কিছু বোঝানোর চেষ্টা করা হবে।

আরও পড়ুন: দুঃস্বপ্নের বিশ্বকাপ থেকে কত টাকা পাচ্ছে বাংলাদেশ?

লম্বা স্ট্যাটাসে তিনি যোগ করেন, ক্রিকেটারদের দায় দিন, ভালো কথা। সেটা তাদের প্রাপ্য। পাশাপাশি নিজেরাও বোঝার চেষ্টা করুন যে আপনারাও ব্যর্থ! কারণ, এই পুরো প্রক্রিয়ার অংশ আপনারাও। আপনারা অন্যবারের মতো বলতেই পারেন, অমুকের জন্য পারিনি, তমুক ব্যর্থ হয়েছে, এজন্যই পারলাম না। সেক্ষেত্রে তো দায়টা আপনাদেরও, কারণ উপযুক্ত বিকল্প আপনারা তৈরি করতে পারেননি। সেই দায়িত্ব তো আপনাদের কাঁধেই ছিল, আপনাদের তো আগেই বোঝা উচিত ছিল! আপনারা সেটা পারেননি। তাই দয়া করে, সত্যকে আলিঙ্গন করুন এবং নতুনভাবে কাজ শুরু করুন।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *