পাকিস্তানে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, আইসিসিকে ধন্যবাদ রমিজের | খেলা

পাকিস্তানে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, আইসিসিকে ধন্যবাদ রমিজের | খেলা

<![CDATA[

প্রায় ৩০ বছর পর পাকিস্তানে আবারও কোনো বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট হতে যাচ্ছে। আইসিসির আগামী দশ বছরের পরিকল্পনা অনুযায়ী, ২০২৫ সালে পাকিস্তানে হবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি।

১৯৯৬ সালে শেষবার কোনো টুর্নামেন্ট হয়েছিল পাকিস্তানে। তারপর থেকে আর কোনো আসর হয়নি দেশটিতে। জঙ্গি হামলা, নিরাপত্তা সংক্রান্ত ঝুঁকির কারণে দ্বিপাক্ষিক সিরিজও দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল।

এদিকে, দীর্ঘদিন পর আইসিসির কোনো ইভেন্ট আয়োজন করার সুযোগ পেয়ে বেজায় খুশি পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। আইসিসিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজনের জন্য মুখিয়ে আছেন পিসিবির চেয়ারম্যান রমিজ। তিনি বলেন, ‘আইসিসি যে গুরুত্বপূর্ণ এই টুর্নামেন্টের জন্য পাকিস্তানকে নির্বাচন করেছে, তাতে অত্যন্ত আনন্দিত। এই আনন্দের কোনো সীমা নেই। পাকিস্তানকে একটি বড় টুর্নামেন্টের দায়িত্ব দিয়েছে আইসিসি। আমাদের ওপর পূর্ণ বিশ্বাস রেখেছে। আমাদের পরিচালনা, অপারেশনাল সক্ষমতা  এবং দক্ষতার ওপর সম্পূর্ণ আস্থা রেখেছে আইসিসি।’

তিনি বলেন, ‘আমরা কতটা ভালো আয়োজক হতে পারি, সেটি প্রমাণ করার ধারাটা অব্যাহত রেখেছি। ২০২৫ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির হাত ধরেই আবারও খেলার প্রতি আমাদের আবেগ এবং ভালবাসা প্রদর্শন করব। কারণ এই ইভেন্টটি দেশের লাখ লাখ ভক্তদের জন্য আশীর্বাদ হবে।’

আগামী দশ বছরের জন্য পুরুষ ক্রিকেটের সবগুলো বৈশ্বিক আয়োজকের নাম ঘোষণা করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) আনুষ্ঠানিক এক বিবৃতিতে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

সেই সূচিতে ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হচ্ছে যৌথভাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রে। এরপর ২০২৫ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হতে যাচ্ছেখে পাকিস্তানে। আর এই টুর্নামেন্টের মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিন পর পাকিস্তানে আইসিসির বৈশ্বিক কোনো আসর হতে যাচ্ছে। এছাড়া সবশেষ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৭ সালে।

আরও পড়ুন : আইসিসিতে বড় দায়িত্বে সৌরভ

২০২৬ সালে আবার আরেকটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, যেটি যৌথভাবে আয়োজন করবে ভারত ও শ্রীলঙ্কা। এরপর ২০২৭ সালে আরেকটি ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজন করতে যাচ্ছে আফ্রিকার দেশগুলো। দক্ষিণ আফ্রিকা, নামিবিয়া ও জিম্বাবুয়েতে আয়োজন হবে সেই ওয়ানডে বিশ্বকাপ। 

এছাড়া ২০২৮ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে ট্রান্স-তাসমান দুই প্রতিবেশী দেশ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে। পরের বছর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হবে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারতে। 

এরপর ২০৩০ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড ও স্কটল্যান্ড। আর ২০৩১ সালে ভারতের সঙ্গে যৌথভাবে ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজন করবে বাংলাদেশ।

 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *