নিষ্পাপ গর্ভধারণ উৎসবে ইতালিতে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া! | আন্তর্জাতিক

নিষ্পাপ গর্ভধারণ উৎসবে ইতালিতে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া! | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

হযরত মরিয়ম (আ.) নিষ্পাপ কুমারী হয়েও তার গর্ভে ধারণ করেন হযরত ঈসাকে (আ.), যা আল্লাহর নির্দেশে হয়েছিল। যেদিন তিনি বুঝতে পারলেন যে তিনি মা হচ্ছেন, এই দিনটিকে স্মরণ করে বুধবার (৮ ডিসেম্বর) পালিত হয় নিষ্পাপ গর্ভধারণ উৎসব।

এদিন ইতালিতে পালিত হয়েছে উৎসব। এদিনটি সরকারি ছুটির দিন। এই উৎসবটির নাম ‘নিষ্পাপ গর্ভধারণ’। হাজার বছরের পুরনো এই উৎসবটি যীশু (হযরত ঈসা আ.) মায়ের গর্ভে আসার খবরটি যেদিন প্রথম প্রকাশ হয় সেই দিনটির প্রতি শ্রদ্ধা ও স্মরণ করে তা পালিত হয়।

সাধারণত কোনো নারীর প্রথম যেদিন মা হবার সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়, তার পরিবারের মাঝে আনন্দময় উৎসব করতে দেখা যায়।

কিন্তু মেরী (হযরত মরিয়ম আ.) যখন মা হলেন, তখন তার বিয়েও হয়নি। পরম করুণাময় সৃষ্টিকর্তার কুদরতে মেরী গর্ভবতী হন এবং তিনি তা সাধারণ মানুষের সঙ্গে সহজে লজ্জায় প্রকাশ করতে পারেননি।

৬ বা ৮ কিংবা ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এই উৎসবটি থেকেই বিশ্বের অধিকাংশ খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের দেশে পালিত হয়ে আসছে। এবছর ইতালিতে ৮ ডিসেম্বর তা পালিত হয়েছে। দেশটিতে দিনটি সরকারি ছুটির দিন হিসেবে পালিত হয়।

উৎসব পালনে সব ধরনের প্রস্তুতির ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিলেন ইতালীয়রা। তবে এবার ইতালিতে বাদ সেজেছে বৈরী আবহাওয়া।

দু’দিন আগে থেকেই শীতের কাঁপন বেড়েছে ইতালি জুড়ে। সেই সঙ্গে বুধবার সমগ্র ইতালিতে মারাত্মক দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কথা ঘোষণা করে ইতালির  আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সাড়া দেশে বৃষ্টি, তুষারপাত, জোর হাওয়া ও হিমশীতল ঠান্ডা বাতাসে ইতোমধ্যে জনজীবন বিপন্ন হচ্ছে। ইতালিতে শীতের তীব্রতা বেড়েছে অনেক বেশি। প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হচ্ছেন না। 

আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী ইতালির অনেক স্থানে  ১৫-২০ সেন্টিমিটার পর্যন্ত তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। খুব ঠান্ডা ও তাপমাত্রা নেব যাবার পরিপ্রেক্ষিতে কুনিও, তুরিন, জেনোয়া, ভারেসে, কমো, বের্গামো, ব্রেসিয়া, পাভিয়া, ভিসেন্জা, ভেরনা, মিলান অঞ্চলে তুষার ঝড় বইতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তর। ইতালির মিডিয়া নিষ্পাপ গর্ভধারণ উৎসবের দিনের খারাপ আবহাওয়ার নামকরণ করেন ‘ইম্যাকুলেট স্টর্ম’ বা নিষ্পাপ ঝড় নামে।

ইতালি জুড়ে এমন দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া আগামী ২-৩ দিন স্থায়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানায় দেশটির আবহাওয়া অফিস। একপাশে করোনা ভাইরাস, অন্যপাশে  কঠিন শীত তাই এই সময়ে অধিক সতর্কতা অবলম্বন জরুরি বলে জানায় ইতালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *