নিউইয়র্কে মর্যাদাপূর্ণ কুইন্স থিয়েটারে বিউটির গানে মুগ্ধ দর্শক-শ্রোতা | আন্তর্জাতিক

নিউইয়র্কে মর্যাদাপূর্ণ কুইন্স থিয়েটারে বিউটির গানে মুগ্ধ দর্শক-শ্রোতা | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে একক সঙ্গীত সন্ধ্যায় মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন সঙ্গীত শিল্পী বিউটি দাস। বাংলাদেশের চ্যানেল আই ও ভারতের ইটিভি বাংলার রিয়েলিটি শো ‘সুর দড়িয়া এপার-ওপার‘ এর দ্বিতীয় রানার আপ বিউটি দাস সুরের দড়িয়ায় ভাসিয়েছেন নিউইয়র্কবাসীদের।

নিউইয়র্কের প্রসিদ্ধ ও মর্যাদাপূর্ণ কুইন্স থিয়েটার ভেন্যুতে বাংলাদেশের প্রথম কোনো সঙ্গীত শিল্পী একক পারফর্ম করলেন। বিউটি দাস গেয়েছেন আধুনিক গান, সিনেমার গান, হারানো দিনের জনপ্রিয় সব গান। বাংলা গানের কিংবদন্তি বিভিন্ন সঙ্গীত শিল্পীর গান পরিবেশন করেন তিনি। তার গায়কী যেমন আকর্ষণীয় ছিল তেমনি কণ্ঠে ছিল দরদ, শ্রদ্ধা আর ভালবাসার মাধুর্য্য। বাংলা গানের পাশাপাশি বিউটি গেয়েছেন ইংরেজি ও হিন্দি ভাষায় বেশ কয়েকটি গান। তিনি যখন গেয়েছেন পেছনে ভেসে উঠেছে কিংবদন্তি শিল্পীদের ছবি। অন্যরকম এক আবহ তৈরি হয় তখন।

নিউইয়র্কে সঙ্গীতপ্রেমীদের কাছে শনিবারের (৭ নভেম্বর) বৃষ্টিভেজা পুরো সন্ধ্যাটা ছিল যেন বিউটির। দর্শকদের উচ্ছ্বাসই তা বলে দিয়েছে। কনসার্ট শেষে বিউটি দাসের চোখে-মুখে ছিল আনন্দময় অনুভূতি। জানালেন, কুইন্স থিয়েটারে পারফর্ম করার দীর্ঘদিনের আকাঙ্খা তার পূরণ হয়েছে।

আরও পড়ুন: আমেরিকার রাজনীতিতে মুসলিমদের জয়জয়কার

এদিন পুরো শিল্পী সত্তাকে উজার করে দেন বিউটি। আর মন্ত্র-মুগ্ধের মতো তা উপভোগ করেন দর্শক-শ্রোতা। অনুষ্ঠানের সাউন্ড, আলোকসজ্জ্বা, ভিডিওগ্রাফী সব মিলিয়ে অন্যরকম এক আবহে নিউইয়র্কের দর্শকরা অনেক দিন পর একটি সেরা অনুষ্ঠান দেখলেন। বিউটির একক এই শো’টির আয়োজক ছিল বিডি সাউন্ড ও ওয়ারফেয়ার। অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার সময় টিভি। আর পুরো আয়োজনের নেপথ্যে ছিলেন সঙ্গীতশিল্পী ও মিউজিশিয়ান রাজীব রহমান।

নিজের মৌলিক গান দিয়ে কনসার্টটি শুরু করেন বিউটি, তারপর একে একে গেয়েছেন ২৭টি গান। ছিল দেশাত্ববোধক, ব্যান্ডের গান ও ফোক। শেষে গাইলেন আর রবীন্দ্র সঙ্গীত। সত্য সুন্দর আর আনন্দের অনুভূতি নিয়ে বাড়ি ফিরলেন শত শত দর্শক।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *