নাসিরনগরে বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও | বাংলাদেশ

নাসিরনগরে বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও | বাংলাদেশ

<![CDATA[

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে নবম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রী।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) দুপুরে বিয়ে বাড়িতে বর আসার আগেই উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হালিমা খাতুন উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের সওদাগর গ্রামের ওই ছাত্রীর বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, ওই ছাত্রীর সাথে হবিগঞ্জ জেলার দুবাই প্রবাসী এক যুবকের শুক্রবার দুপুরে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হালিমা খাতুন শুক্রবার দুপুরে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হন। পরে তিনি ওই ছাত্রীর জন্মনিবন্ধন যাচাই-বাছাই করে দেখতে পান ওই ছাত্রী অপ্রাপ্ত বয়স্ক। পরে তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ২০১৭ এর ৮ ধারায় কনের পিতাকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ও কনের প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত তাকে বিয়ে দেবেন না মর্মে ওই ছাত্রীর বাবার কাছ থেকে মুচলেকা নেন।

আরও পড়ুন: স্ত্রীকে পিটিয়ে মেরেই ফেললেন মহিদুল

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হালিমা খাতুন বলেন, বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *