নারী উদ্যোক্তাদের বিনামূল্যে পণ্য প্রদর্শন-বিক্রির সুযোগ | বাণিজ্য

নারী উদ্যোক্তাদের বিনামূল্যে পণ্য প্রদর্শন-বিক্রির সুযোগ | বাণিজ্য

<![CDATA[

২৬তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০২২ এ ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বিনামূল্যে পণ্য প্রদর্শন এবং বিক্রির সুযোগ করে দিয়েছে জাতিসংঘের উন্নয়ন সংস্থার (ইউএনডিপি) অধীনে কাজ করা আনন্দ মেলা স্টল।

আনন্দ মেলা মূলত ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে কাজ করে। এরই ধারবাহিকতায় ৬০ জন নারী উদ্যোক্তাকে বিনামূল্যে পণ্য প্রদর্শন এবং বিক্রির সুযোগ করে দিয়েছে আনন্দ মেলা।

এ বিষয়ে ইউএনডিপির কর্মী এবং আনন্দ মেলা স্টলের মুখপাত্র সারাহ জিতা বলেন, আমরা মূলত নারীদের নিয়ে কাজ করি। অনেক ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তা রয়েছেন, যাদের কাছে বাণিজ্য মেলায় নিজেদের স্টল দিয়ে পণ্য প্রদর্শনী এবং বিক্রির সামর্থ্য নেই। আমার তাদের স্বপ্নপূরণের জন্যই কাজ করছি।

সরজমিনে স্টলটি ঘুরে দেখা যায়, মানুষ আগ্রহ নিয়ে স্টলটি ঘুরে ঘুরে দেখছে। অনেকেই পছন্দসই পণ্যই কিনছে। মূলত হাতবুননে তৈরি মেয়েদের পোশাক এবং ঘরোয়া পদ্ধতিতে প্রস্তুতকৃত মসলার দিকে মানুষের বেশি আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে।

ক্রেতাদের সাড়া এবং বিক্রির ব্যাপারে জানতে চাইলে একজন নারী উদ্যোক্তা মুসফেরা জাহান বলেন, শুরু থেকেই আমাদের স্টলের দিকে মানুষের আলাদা একটি আকর্ষণ রয়েছে। এমনও হয়েছে পণ্য প্যাকেট থেকে খুলে বের করার আগেই বিক্রি হয়ে গিয়েছে। আনন্দ মেলাকে ধন্যবাদ আমাদের এমন সুযোগ করে দেবার জন্য।

আরও পড়ুন: বাণিজ্য মেলায় গাড়ি পার্কিং নিয়ে বিভ্রাট

আরেকজন নারী উদ্যোক্তা তারমা শিরিন শম্পা বলেন, এটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো লাগছে। নিজে একটি স্টলে নিজের তৈরি পণ্য প্রদর্শন করতে পারবো কখনও ভাবিনি।

ইউএনডিপি মূলত ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের বাজার ব্যবস্থার সঙ্গে সম্পৃক্ত করতে নানা ধরনের উদ্যোগ হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে নারীদের বিনামূল্যে দক্ষতামূলক প্রশিক্ষণ দেওয়া, কর্মসংস্থান ঠিক করে দেওয়া এবং আয়ের উৎস তৈরি করে দেওয়া অন্যতম।

ইউএনডিপিকে ধন্যবাদ জানিয়ে নারী উদ্যোক্তা আফসানা খান হিমু বলেন, করোনাসময়ে আমরা অথৈ জলে ভাসছিলাম। ইউএনডিপি আমাদের বিনামূল্যে সহযোগিতা করেছে এবং আমাদের অর্থ উপার্জনেরও পথ সৃষ্টি করে দিয়েছে।

কাপড়ের মান সম্পর্কে জানতে চাইলে আরেক উদ্যোক্তা ফারাহ দিবা বলেন, আমরা সবসময় টাঙ্গাইলের তাঁতের কথা শুনে থাকি। তবে চাপাইনবয়াবগঞ্জও তাঁতের জন্য বিখ্যাত। আমার তৈরি পোশাকগুলো মূলত চাপাইনবয়াবগঞ্জের তাঁত শিল্পিদের হাতে গড়া।

চলতি মাসের প্রতিদিনই চলবে বাণিজ্য মেলা। প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত মেলা চলবে। বাণিজ্য মেলার ১১নং স্টলে ইউএনডিপির সহযোগিতায় আনন্দ মেলা তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *