নতুন ইসি গঠন নিয়ে বিশ্লেষকরা যা বলছেন | বাংলাদেশ

নতুন ইসি গঠন নিয়ে বিশ্লেষকরা যা বলছেন | বাংলাদেশ

<![CDATA[

আগামী ফেব্রুয়ারিতে শেষ হচ্ছে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ। তাই নতুন কমিশন গঠনে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ শুরু করছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) বিকেল চারটায় বঙ্গভবনে সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির (জাপা) সঙ্গে প্রথম বৈঠক হবে।

এরপর বুধবার হবে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সঙ্গে সংলাপ। এদিকে বিএনপির দাবি, সার্চ কমিটির মাধ্যমে গঠিত কমিশন নিরপেক্ষ হতে পারে না, তাই তারা এই সংলাপে অংশ নেবে না।

তবে নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে আস্থার সংকট কাটাতে স্থায়ী আইন প্রণয়নের পরামর্শ বিশ্লেষকের।

রাজনীতি বিশ্লেষক ড. জোবাইদা নাসরিন বলেন, নির্বাচন কমিশন কেন্দ্র করে এ আইন যদি তৈরি হয় তাহলে বাংলাদেশের রাজনীতিতে একটি স্বচ্ছতার জায়গা এবং গত দুই বছরে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অস্বচ্ছতার যে জায়গা তৈরি হয়েছে, সেগুলো আমার কাছে মনে হয় কমে যাবে।

আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর মালদ্বীপ সফর: যেসব সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হতে পারে
 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সাব্বীর আহমেদ বলেন, জাতীয় সংসদ রয়েছে, সেই সংসদেও যদি আলোচনা করা হয় বা এ বিষয়ে একটি বিল আনা হয়, তা হলে একটা ঐকমত্যের ভিত্তিতে আইন তৈরি করা যেতে পারে।

এ পর্যন্ত গঠিত ১২টি নির্বাচন কমিশনের মধ্যে গত দুটি কমিশন রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটির মাধ্যমে গঠন করেন। ২০১৬ সালের শেষ দিকে ইসি গঠনের লক্ষ্যে একইভাবে সংলাপ শুরু করেছিলেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এক মাসের বেশি সময় ধরে সেই সংলাপ চলে। বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি।
 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *