দেড় মাস আগেই কানাডায় গিয়েছিলেন ডা. মুরাদ | বাংলাদেশ

দেড় মাস আগেই কানাডায় গিয়েছিলেন ডা. মুরাদ | বাংলাদেশ

<![CDATA[

দেড় মাস আগেই কানাডায় গিয়েছিলেন সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান। সেখানে আলোচনা সভায় অংশগ্রহণসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকীর কেকও কেটেছিলেন তিনি।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কানাডার ভ্যাংকুভারে আওয়ামী লীগ সমর্থকদের এক আয়োজনে যোগ দেন ডা. মুরাদ হাসান।

ওইদিন কানাডার ভ্যানকুভারে বঙ্গবন্ধু পরিষদ আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে মুরাদ হাসান যোগ দেন বলে তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। ওই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে একটি কেকও কাটা হয়।

এর আগে গত ২৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, কানাডার কুইবেক শাখা আয়োজিত এক সভায় অংশ নিয়েছিলেন তিনি। ওই সভা শেষে বঙ্গবন্ধুর তিনটি বই বিতরণ করেন ডা. মুরাদ।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, কানাডা, কুইবেক শাখার সভাপতি মুন্সি বশীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত নেতাকর্মী ও প্রবাসী বাঙালিদের মাঝে ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’, ‘কারাগারের রোজনামচা’ ও ‘আমার দেখা নয়াচীন’ এই তিনটি বই বিতরণ করেন সে সময়কার তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সুদৃঢ় নেতৃত্বে আমরা এখন উন্নয়নের মহাসড়কের যাত্রী জানিয়ে কানাডায় ডা. মুরাদ হাসান বলেন, ‘উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রাখতে আমাদের প্রত্যেককে যে যেখানে আছি সেখান থেকে নিজ নিজ দায়িত্ব-কর্তব্য সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে হবে। সবার মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা এগিয়ে যাব।’

‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশে দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ চলবে না হুঁশিয়ারি জানিয়ে তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের মাটি থেকে অপশক্তিকে উৎখাত করতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি তাহলেই আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ করতে পারব।’

এছাড়া বঙ্গবন্ধুর খুনি নূর চৌধুরীর বিচারের রায় কার্যকর করার জন্য তাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাতে কানাডা প্রবাসীদের আন্দোলন গড়ে তোলারও  আহ্বান জানান ডা. মুরাদ হাসান।

আরও পড়ুন: কানাডার উদ্দেশে দেশ ছাড়লেন ডা. মুরাদ

আবারও কানাডার পথে রওনা হয়েছেন সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) রাত সোয়া ১টার পর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দুবাইগামী এমিরেটস ফ্লাইটে কানাডার টরেন্টোর পথে যাত্রা করেন তিনি।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবেশ করেন তিনি। ফ্লাইট ছাড়ার আগ মুহুর্ত পর্যন্ত বিমানবন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জে অবস্থান করছিলেন ডা. মুরাদ।

এদিকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ৪ মিনিটে গুলশানের এক নম্বর থেকে দুই নম্বর যাওয়ার সময় তাকে দেখা যায়। এসময় তিনি সাদা রংয়ের ল্যান্ড ক্রুজার (গাড়ি নম্বর -ঢাকা মেট্রো -ঘ  ১৮: ৩৮২৭) গাড়িটি নিজেই চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

এসময় গাড়িতে একাধিক লাগেজ ছিল। তিনি ছাড়া গাড়িতে কেউ ছিলেন না। পরে গাড়িটি আজাদ মসজিদের পাশের রাস্তা দিয়ে দ্রুত গতিতে বনানীর দিকে এগিয়ে যায়। এছাড়া গতকাল বুধবার (৮ ডিসেম্বর) কানাডায় যাওয়ার জন্য টিকিট কাটেন বলে সংশ্লিষ্ট এয়ারলাইনস সূত্র সংবাদমাধ্যমকে জানায়।

জানা যায়, প্রতিমন্ত্রী থাকা অবস্থায় মুরাদ হাসানের যে লাল পাসপোর্ট (বিশেষ পাসপোর্ট) ছিল, সেটি পদত্যাগের দিন মঙ্গলবার বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে মুরাদ হাসানের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

আরও পড়ুন: দেশ ছাড়তে বিমানবন্দরে ডা. মুরাদ

গত কয়েকদিন ধরে সারা দেশের টক অব দ্য কান্ট্রি সদ্য পদত্যাগ করা প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একাধিক অডিও-ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর অনেকটাই আত্মগোপনে চলে গেছেন আলোচিত সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী। গণমাধ্যম বারবার যোগাযোগ করেও তার সাথে যোগাযোগ করতে ব্যর্থ হয়েছে। পদত্যাগপত্র জমা দিতেও আসেননি সচিবালয়ে।

বেশ কিছুদিন ধরে বিভিন্ন কারণে আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন ডা. মুরাদ হাসান। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি অডিও ক্লিপ। যেখানে কথা বলেন ডা. মুরাদ হাসান। অপর প্রান্তে ছিলেন চিত্রনায়ক ইমন ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি।

ফাঁস হওয়া ওই কথোপকথনে মুরাদ মাহিকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় তুলে আনার হুমকি দেন। পুরো বক্তব্যে ‘অশ্রাব্য’ কিছু শব্দ উচ্চারিত হয়েছে। বিষয়টি এখন ‘টক অব দ্য কান্ট্রি’।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *