ঢাবি শিক্ষক সমিতি নির্বাচন: সাদা-নীল প্যানেল চূড়ান্ত, নেই বাম সংগঠন | শিক্ষা

ঢাবি শিক্ষক সমিতি নির্বাচন: সাদা-নীল প্যানেল চূড়ান্ত, নেই বাম সংগঠন | শিক্ষা

<![CDATA[

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষক সমিতির কার্যকরী পরিষদ নির্বাচন আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এদিন সকাল ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে ভোটগ্রহণ শুরু হবে। চলবে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত।

এর আগে, গত ১৮ ডিসেম্বর মনোনয়ন জমাদানের শেষ দিন ছিল। আজ সোমবার (২০ ডিসেম্বর) ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন।

এবারের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক তোফায়েল আহমদ চৌধুরী।

এদিকে, আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে প্যানেল চূড়ান্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল ও আওয়ামী লীগপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন নীল দল। 

তবে, এ নির্বাচনে এবারও অংশ নিচ্ছে না বামপন্থি শিক্ষকদের সংগঠন গোলাপি দল। আওয়ামী লীগপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন নীল দলের প্যানেল থেকে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন আইন বিভাগের ভারপ্রাপ্ত ডিন অধ্যাপক ড. মো রহমত উল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক পদে পুষ্টি ও খাদ্যবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূঁইয়া।

এছাড়া, সহ-সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন অনুজীব বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সাবিতা রিজওয়ানা রহমান, যুগ্ম-সম্পাদক পদে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবদুর রহিম, কোষাধ্যক্ষ পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আকরাম হোসেন।

এছাড়া ১০টি সাধারণ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মঈন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম, সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা, টেলিভিশন, ফিল্ম অ্যান্ড ফটোগ্রাফি বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এ জেএম শফিউল আলম ভূঁইয়া, ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. ফিরোজা ইয়াসমীন, তথ্য বিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. নাসিরুদ্দিন মুন্সি, ফার্মেসি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. ফিরোজ আলম, রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. লাফিফা জামাল, অধ্যাপক চন্দ্রনাথ পোদ্দার এবং পদার্থ বিভাগের অধ্যাপক ড. ইসতিয়াক এম সৈয়দ।

আরও পড়ুন: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ পেলেন শাবিপ্রবির ২২ শিক্ষক

নির্বাচনে পূর্ণ প্যানেল জয়ের প্রত্যাশা করে নীল দলের প্যানেল থেকে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূঁইয়া সময় নিউজকে বলেন, আমরা আশা বাদী আমরা পূর্ণ প্যানেল জয়ী হতে পারবো। তবে, তাদের মধ্যে কয়েকজন শক্তিশালী ক্যান্ডিডেট রয়েছে। তবুও আমরা আশাবাদী।

শিক্ষকদের থেকে কেমন সাড়া পাচ্ছেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, শিক্ষকরা আমাদের পক্ষে। তবে কিছু সুযোগ-সুবিধা নিয়ে তাদের মনোমালিন্য রয়েছে। আমরা আশা করি সম্বন্বয় করতে পারবো।

অন্যদকে, বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দলের প্যানেল থেকে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ড. ইয়ারুল কবীর এবং সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. আব্দুস সালাম।

এছাড়া, সহ-সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মামুন আহমেদ, যুগ্ম সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন দর্শন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. দাউদ খাঁন, কোষাধ্যক্ষ পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন একাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আল আমি।

১০টি সাধারণ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন অধ্যাপক ড. আশেকুল আলম রানা, অধ্যাপক ড. এ এস এস আমানুল্লাহ, অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. এবিএম শহিদুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা আল মামুন, অধ্যাপক ড. মো. জসীম উদ্দিন, অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল মজিদ, অধ্যাপক ড. মো. মহিউদ্দিন, অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান ও সহযোগী অধ্যাপক সৈয়দ তানভীর রহমান।

এবারের নির্বাচনে ভাল ফল প্রত্যাশা করে সাদা দলের প্যানেল থেকে সভাপতি প্রার্থী ড. ইয়ারুল কবীর সময় নিউজকে বলেন, আমার আশাবাদী আমাদের ফলাফল ভালো হবে। প্রতিযোগিতা কেমন হলে তা এখনো বলা সম্ভব নয়। আমরা যে মেজটিরি পাবো তা নয় তবে আমরা আগের বছরগুলোর মতো ভালো করার প্রত্যাশা রাখছি।

এর আগে ২০২১ সালের কার্যকরী পরিষদ নির্বাচনে সাদা দল নির্বাচনে অংশ না নেওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় লাভ করে নীল দল। গত কয়েক বছর ধরে শিক্ষক সমিতিতে নীল দলের প্যানেল জয়ী হয়ে আসছে।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *