টাইগারদের দুই উইকেটের পতন | খেলা

টাইগারদের দুই উইকেটের পতন | খেলা

<![CDATA[

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) পাকিস্তানের বিপক্ষে দিনের শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে ফেলেছে বাংলাদেশ। সাইফের পর ফিরে গেছেন সাদমান ইসলামও।

ওয়ানডে মেজাজে খেলে আউট হয়েছেন বাংলাদেশ ওপেনার সাইফ হাসান। শাহিন শাহ আফ্রিদির বলে আবিদ আলিকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন তিনি। আউট হওয়ার আগে ১২ বলে ১৪ রান করেন হাসান। অথচ কদিন আগে বাবর আজমদের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৮ বল খেলে তিনি করেছিলেন মাত্র এক রান। সাইফের পর ১৪ রান করে হাসান আলির বলে এলবিডব্লিউর শিকার হয়েছেন সাদমান।
 

বাংলাদেশ এখন ৮ ওভারে ৩৩ রান নিয়ে ব্যাট করছে। ৫ রান নিয়ে শান্ত ও শূন্য রান নিয়ে মুমিনুল ক্রিজে রয়েছেন।
 

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এর আগে টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেয় বাংলাদেশ। বাংলাদেশ দলে অভিষেক হয়েছে ইয়াসির আলি রাব্বির। পাকিস্তান দলেও একজনের অভিষেক হয়েছে এ ম্যাচ দিয়ে। ইয়াসির আলি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে খেলেছেন ৫৭ ম্যাচ। এই ফরম্যাটে তার শতকের সংখ্যা ৯টি। অন্যদিকে ৭৭টি লিস্ট ‘এ’ শ্রেণির ম্যাচে ২টি শত রানের ইনিংস রয়েছে তার নামের পাশে।
 

এ ম্যাচ দিয়ে অভিষেক হয়নি বহুল আলোচিত মাহমুদুল হাসান জয়ের। বাংলাদেশের হয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী। গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত হওয়া আসরে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশকে শিরোপার স্বাদ দিতে অসামান্য অবদান রেখেছেন তিনি। সম্প্রতি জাতীয় ক্রিকেট লিগেও হেসেছে তার ব্যাট, চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত দুটি সেঞ্চুরিও হাঁকিয়েছেন তিনি।
 

আরও পড়ুন: টিভিতে খেলার সূচি
 

বাংলাদেশ দলে সর্বশেষ ডাক পান পেসার খালেদ আহমেদ ও শহিদুল ইসলাম। ফলে বাংলাদেশের স্কোয়াডের সদস্য সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১৭-তে। এর আগে ২২ নভেম্বর ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করে বিসিবি।
 

পাকিস্তান দলে অভিষেক হচ্ছে আবদুল্লাহ শফিকের। এর আগে তিনি ৩টি প্রথম শ্রেণির ও ৪টি লিস্ট ‘এ’ শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন।
 

বাংলাদেশ একাদশ

মুমিনুল হক (অধিনায়ক), সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, সাইফ হাসান, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, ইবাদাত হোসেন, আবু জায়েদ ও ইয়াসির আলি রাব্বি।
 

পাকিস্তান একাদশ

বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (সহ-অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), আব্দুল্লাহ শফিক, আবিদ আলী, আজহার আলী, ফাহিম আশরাফ, ফাওয়াদ আলম, হাসান আলী, নোমান আলী, সাজিদ খান ও শাহীন শাহ আফ্রিদি।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *