জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্কট মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর ৪ দফা প্রস্তাব | আন্তর্জাতিক

জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্কট মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর ৪ দফা প্রস্তাব | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতির মুখে থাকা দেশগুলোর জন্য, ধনী দেশগুলোকে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বাৎসরিক ১শ’ বিলিয়ন ডলার অর্থায়ন নিশ্চিত করার দাবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতির মুখে থাকা দেশগুলোর জন্য, ধনী দেশগুলোকে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বাৎসরিক ১শ’ বিলিয়ন ডলার অর্থায়ন নিশ্চিত করার দাবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

 

সোমবার স্কটল্যান্ডে চলমান জলবায়ু সম্মেলনের মূল পর্বে তিনি বক্তব্য রাখেন। জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় চার দফা প্রস্তাব উত্থাপন করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ১২ বিলিয়ন ডলারের কয়লা প্রকল্প থেকে সরে এসেছে।

 

জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন বা কপ টুয়েন্টি সিক্সে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই প্ল্যাটফর্মে তিনি ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরাম বা ভুক্তভোগী দেশগুলোরও নেতৃত্ব দিচ্ছেন সিভিএফ প্রেসিডেন্ট হিসেবে।

 

গ্লাসগোতে স্থানীয় সময় সোমবার দুপুরে জলবায়ু সম্মেলনের উদ্বোধনী পর্বে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তাকে স্বাগত জানান বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস৷

 

স্থানীয় সময় বিকেলে কনফারেন্স অব পার্টিজ বা কপ-টুয়েন্টি সিক্সের মূল পর্বে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সামাল দিতে বাংলাদেশের কার্যক্রম তুলে ধরে তিনি জানান, ক্ষতি হবে জেনে ১০টি কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিল করেছে তার সরকার।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশ ৪০ শতাংশ বিদ্যুত নবায়ন যোগ্য জ্বালানি খাত থেকে আসবে। জলবায়ু বিপদ্গ্রস্ত দেশ থেকে জলবায়ু সহিষ্ণু দেশ পরিণত হতে মুজিব ক্লাইমেট প্রসপারিটি প্ল্যান করছে বাংলাদেশ।

 

আরও পড়ুনঃ জলবায়ু-সম্মেলনে-মোদির-প্রতিশ্রুতি

 

ধনী দেশগুলোকে প্রতিশ্রুত অর্থ বরাদ্দের জোর দাবি জানান শেখ হাসিনা। সংকট মোকাবিলায় তুলে ধরেন চার দফা প্রস্তাব।তিনি বলেন, উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য জলবায়ু অর্থয়ান হিসেবে ১০০ বিলিয়ন ডলার সুরক্ষিত করতে হবে।

 

এর আগে, ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরাম ও কমনওয়েলথ আয়োজিত ক্লাইমেট প্রসপারিটি পার্টনারশিপ শীর্ষক উচ্চ পর্যায়ের সাইড লাইন বৈঠকে অংশ নেন শেখ হাসিনা। 

 

কমনওয়েলথ মহাসচিব প্যাট্রিসিয়া স্কটল্যান্ডসহ বিশিষ্ট নেতাদের উপস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন ঠেকাতে বাস্তব সম্মত ও কার্যকর সমাধান খুঁজতে হবে বিশ্ব নেতাদের৷

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন এখন বৈশ্বিক একটি ইস্যু। কোন দেশেরই এই পরিস্থিতি অস্বীকার করার উপাই নেই। পৃথিবীর ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বাঁচাতে আমাদের জরুরী ও সুস্পষ্ট পদক্ষেপ নিতে হবে।

 

এই সভায় শেখ হাসিনা সাফ জানিয়েছেন বাংলাদেশসহ ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের ৪৮টি সদস্য দেশ গোটা বিশ্বের মাত্র ৫ শতাংশ কার্বন নিঃসরণ করছে। অথচ জলবায়ুর ক্ষতির মুখে থেকেও জীবন ও জীবিকায় ব্যাপক হুমকির মুখে এই দেশগুলো৷

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *