গণপিটুনিতে দুই ‘ডাকাত’ নিহত, পরিবারের দাবি হত্যাকাণ্ড

নরসিংদীর বেলাবতে গণপিটুনিতে সন্দেহভাজন দুই ‘ডাকাত’ নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (৮ জুন) রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার দড়িকান্দি-বড়চর সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- রায়পুরা উপজেলার লোচনপুর গ্রামের আতর মিয়ার ছেলে জুয়েল মিয়া (৩০) ও একই গ্রামের শহিদ উল্লাহর ছেলে নাদিম মিয়া (৩০)। বেলাব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাফায়েত হোসেন পলাশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বেলাব উপজেলার দড়িকান্দি বাসস্ট্যান্ড থেকে রায়পুরা উপজেলার সীমান্তবর্তী বড়চরগামী সড়কে প্রায়ই ডাকাতি ও ছিনতাই সংঘটিত হয়। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে ৩-৪ জন ব্যক্তি ওই সড়কে ঢুকে। এসময় তাদের গাড়িতে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে স্থানীয়দের চিৎকারে দড়িকান্দি ও বড়চর এলাকার লোকজন জড়ো হয়ে দুই দিক থেকে সন্দেহভাজন ডাকাতদের অবরুদ্ধ করার চেষ্টা করে। এসময় ডাকাতরা নম্বরবিহীন সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশা ফেলে রেখে পালানোর চেষ্টা করলে স্থানীয়রা দুইজনকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। অন্যান্যরা পালিয়ে যায়।
এসময় উত্তেজিত জনতা সিএনজিচালিত অটোরিকশাটি ভাংচুর চালালে সিলিন্ডার থেকে আগুন লেগে পুড়ে যায়। নিহত দুইজনের মধ্যে জুয়েলের বিরুদ্ধে রায়পুরা থানায় মাদক মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: সুইসাইড নোট হাতে চলন্ত ট্রেন থেকে লাফ দিয়ে নারীর আত্মহত্যা

তবে নিহত একজনের পরিবারের সদস্যরা সাংবাদিকদের নিকট অভিযোগ করেছেন, ফোন করে ডেকে এনে পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। কে বা কারা কী কারণে এ হত্যার ঘটনা ঘটিয়েছে তাৎক্ষনিকভাবে তা জানাতে পারেননি তারা।

DMCA.com Protection Status

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *