কাতার বিশ্বকাপের দুই স্টেডিয়ামের যাত্রা শুরু | খেলা

কাতার বিশ্বকাপের দুই স্টেডিয়ামের যাত্রা শুরু | খেলা

<![CDATA[

গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ ফিফা বিশ্বকাপ। শুরু হয়ে গেছে ক্ষণগণনা। বাকি নেই আর এক বছরও। এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে কাতারের অধিকাংশ স্টেডিয়ামের কাজ।

এদিকে মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) কাতারে পর্দা উঠেছে ফিফা আরব কাপের। আর এই টুর্নামেন্টটির ম্যাচ দিয়ে উদ্বোধন হয়েছে ফিফা বিশ্বকাপের জন্য নবনির্মিত ভেন্যু স্টেডিয়াম নাইন-সেভেন-ফোরের, যা রাস আবু আবুদ স্টেডিয়াম নামেও পরিচিত। এ ছাড়া আরেক নতুন স্টেডিয়াম আল বায়েতেরও যাত্রা শুরু হয়েছে।

এদিকে স্টেডিয়াম নির্মাণ নিয়ে হয়েছে ব্যাপক সমালোচনা। মানবাধিকার সংস্থাগুলো বরাবরই সোচ্চার ছিল। তবে কাতার কর্তৃপক্ষের সে সবে তাকানোর সময় কই।

বিশ্বকাপের ঠিক এক বছর আগে আয়োজক দেশে কনফেডারেশন্স কাপ আয়োজনের রীতি ছিল ফিফার। সেই রীতি অনুযায়ী এ বছর কাতারে হওয়ার কথা ছিল মহাদেশীয় চ্যাম্পিয়নদের নিয়ে সেই আসর। তবে ২০১৯-এ কনফেডারেশন্স কাপ বিলুপ্ত করে ফিফা।

তারপরও বিশ্বকাপ শুরুর এক বছর আগে, ঠিকই বড় আসর আয়োজন করছে বিশ্বকাপ আয়োজক কাতার। ৯ বছর পর ১৬ দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ফিফা আরব কাপ। আর বিশ্বকাপের ৮ ভেন্যুর ৭টিতেই হবে এবারের আরব কাপের খেলা।

এবারের বিশ্বকাপের অন্যতম ভেন্যু স্টেডিয়াম নাইন-সেভেন-ফোর। আরব কাপের খেলাও হবে এই মাঠে। নামের মতো আলাদা বিশেষত্ব আছে এই স্টেডিয়ামের।

আরও পড়ুন : ব্যালন ডি’অর জিতে দুঃসংবাদ পেলেন মেসি

ফিফা বিশ্বকাপ ইতিহাসে এটাই প্রথম অস্থায়ী স্টেডিয়াম। বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর এই স্টেডিয়ামটি ভেঙে ফেলা হবে। পুনর্ব্যবহৃত শিপিং কন্টেইনার ব্যবহার করে নির্মাণ করা হয়েছে পূর্বে রাস আবু আবুদ নামে পরিচিত এই ভেন্যুটি। এই স্টেডিয়ামে ব্যবহৃত আসনগুলো ভেঙে পরবর্তীতে আফ্রিকার নিম্ন উন্নত দেশগুলোকে সহায়তা হিসেবে দেওয়া হবে। এমনভাবে স্টেডিয়াম নির্মাণের ধারণা আসে ফেনউইক ইরিবারের স্থাপত্যের মাধ্যমে।

৪০ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতার এই স্টেডিয়ামে ফিফা আরব কাপের সেমিফাইনাল ও তৃতীয় স্থান নির্ধারণীসহ মোট ৬টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।এই স্টেডিয়াম নিয়ে শুধু আয়োজকই না, ব্যাপক উৎসাহ বিরাজ করছে ফিফা ও এই নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানেরও। সাগরের পার ঘেঁষে নয়নাভিরাম এই স্টেডিয়ামে আরব কাপের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও সিরিয়া।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *