কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে মাদক কারবারি’ নিহতের দাবি | বাংলাদেশ

কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে মাদক কারবারি’ নিহতের দাবি | বাংলাদেশ

<![CDATA[

কক্সবাজারের উখিয়ায় র‍্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক মাদক চোরাকারবারি নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। রোববার (২১ নভেম্বর) ভোররাতে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী এলাকার সৈয়দ আলমের ছেলে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

র‍্যাব-৭ চট্টগ্রাম ব্যাটালিয়ানের সহকারি পরিচালক (গণমাধ্যম ) ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট নিয়াজ মোহাম্মদ চপল জানান, জাহাঙ্গীর আলম একজন চিহ্নিত মাদক কারবারি। সে সংঘবদ্ধ মাদক চক্রের অন্যতম হোতা। তার স্বজনরাও মাদক কারবারে জড়িত রয়েছে।

নিয়াজ বলেন, রোববার ভোররাতে উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী সীমান্ত দিয়ে মিয়ানমার থেকে কতিপয় লোকজন মাদকের বড় একটি চালান নিয়ে আসার খবরে র‍্যাবের একটি দল অভিযান চালায়। এক পর্যায়ে বালুখালী ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় মিয়ানমার দিক থেকে ৫/৬ জন সন্দেহজনক ব্যক্তিকে আসতে দেখে র‍্যাব সদস্যরা থামার জন্য নির্দেশ দেন। কিন্তু তারা না থেমে র‍্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকে। র‍্যাব সদস্যরাও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে।

‘গোলাগুলির এক পর্যায়ে মাদক কারবারিরা পালিয়ে যায়। পরে গোলাগুলি থেমে গেলে ঘটনাস্থলে একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। এ সময় ঘটনাস্থলে তল্লাশি করে পাওয়া যায় ৭০ হাজার ইয়াবা, দেশীয় তৈরি ১টি বন্দুক ও ৩টি গুলি। পরে গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিকে উদ্ধার করে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

আরও পড়ুন : এক রোপণে পাঁচবার ধান!

র‍্যাবের এ গণমাধ্যম কমকর্তা বলেন, ঘটনার পর পুলিশ ও স্থানীয়দের কাছ থেকে নিহত ব্যক্তির পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। সে সংঘবদ্ধ চক্র গড়ে তুলে দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল।

তিনি বলেন, জাহাঙ্গীরের নামে মাদক ব্যবসার অভিযোগে উখিয়া থানাসহ বিভিন্ন থানায় ৫টির বেশি মামলা রয়েছে। তার স্বজনরাও মাদক কারবারে জড়িত। গত ৩ মাস আগে তার এক বড় ভাই ১ লাখ ইয়াবাসহ এবং বছরখানেক আগে ৩ লাখ ইয়াবাসহ এক শ্যালককে র‍্যাব আটক করেছিল।

উখিয়া থানার ওসি আহমেদ সঞ্জুর মোরশেদ বলেন, রোববার বিকালে নিহতের লাশের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। পরে স্বজনদের কাছে লাশটি হস্তান্তর করা হয়েছে।

রাতে ঘটনার ব্যাপারে র‍্যাব বাদী হয়ে অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে আসামি করে মামলা করেছে বলেও জানান ওসি।

 

 

 

 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *