ওমিক্রন আতঙ্ক: নতুন বছর বরণেও জার্মানিতে থাকছে না বিশেষ আয়োজন | আন্তর্জাতিক

ওমিক্রন আতঙ্ক: নতুন বছর বরণেও জার্মানিতে থাকছে না বিশেষ আয়োজন | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

জার্মানিতে বেড়েই চলেছে ওমিক্রনের সংক্রমণ। এ অবস্থায় সরকারের করোনার নীতির সমালোচনার পাশাপাশি টিকাগ্রহণ নিয়েও শঙ্কার কথা জানিয়েছে সাধারণ মানুষ।

 জার্মানিজুড়ে করোনা সংকটে বড়দিনের মতো নতুন বছর বরণেও থাকছে না বিশেষ কোনো আয়োজন।

গত নভেম্বর থেকে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে কাবু জার্মানিতে খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। এরই মধ্যে দেশজুড়ে নতুন এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে। সব মিলিয়ে দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ১২ হাজার আর সংক্রমণ ছাড়িয়েছে ৭০ লাখ।

 

আরও পড়ুন:  ওমিক্রনের তাণ্ডবে দিশেহারা যুক্তরাষ্ট্র, রেকর্ড আক্রান্ত

এদিকে টিকার দুই ডোজ গ্রহণের পরও করোনায় মৃত্যু ও নতুন করে সংক্রমিত হওয়ার ঘটনায় জনমনে নেতিবাচক মনোভাব দিন দিন বেড়েই চলেছে।

এক জার্মানি বলেন, করোনার দুই ডোজ টিকা নিয়েও নতুন করে সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা বাড়ছে। আমি এখনো কোনো টিকা নেইনি কারণ তৈরি টিকাগুলোর ওপর আস্থা রাখা সম্ভব হচ্ছে না। নতুন করে শুনছি করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে কোনো টিকাই কার্যকর না। তো সাধারণ মানুষ যাবে কোন দিকে?

এদিকে ওমিক্রনকে রুখতে সুখবর দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান নোভাভ্যাক্স। প্রোটিন সমৃদ্ধ নোভাক্সোভিড এনভিএক্স CoV2373 নামের নতুন এই ভ্যাকসিনটি ওমিক্রনের বিরুদ্ধে কার্যকর বলে বিশ্বাস প্রতিষ্ঠানটির বিজ্ঞানীদের।

ভ্যাকসিনটি ইতমধ্যে ইউরোপীয় মেডিসিন এজেন্সির অনুমোদন পাওয়ার পর প্রাথমিকভাবে ১০ কোটি ডোজের একটি চুক্তিও করেছে ইইউ। অন্যদিকে, মার্কিন এই প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী জার্মানি পাবে ৪০ লাখ ডোজ।

করোনাবিরোধী জনসমাগম ও সমাবেশের পরও সংক্রমণ থেকে বাঁচতে টিকার কোনো বিকল্প দেখছেন না স্থানীয়রা।

আরেকজন জানান, আমরা মনে করি করোনার আগের ভ্যারিয়েন্টগুলোর মতো ওমিক্রনও সংক্রমক। তাই বাঁচতে হলে টিকা নেওয়ার কোনো বিকল্প দেখছি না।
 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *