অস্বস্তি নিয়েই খেতে গেল বাংলাদেশ | খেলা

অস্বস্তি নিয়েই খেতে গেল বাংলাদেশ | খেলা

<![CDATA[

চট্টগ্রাম টেস্টের চতুর্থ দিন সোমবার (২৯ নভেম্বর) ১৫৯ রানের লিড নিয়ে মধ্যাহ্নবিরতিতে গেছে বাংলাদেশ। হাতে আছে আর মাত্র ৪টি উইকেট। শেষ পর্যন্ত কোথায় গিয়ে থামে বাংলাদেশের ইনিংস, সেটিই এখন দেখার অপেক্ষা।

দিনের শুরুতে মুশফিক আউট হয়ে যাওয়ার পরেও বেশ ভালোভাবেই ঘুরে দাঁড়িয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ইয়াসিরের ইনজুরি, মিরাজের দ্রুত আউট হয়ে যাওয়ার পর এখন বলা যায়, কিছুটা অস্বস্তিতেই আছে টিম টাইগার্সের ডাগআউট। লিটন, সোহানের পর আর কোনো স্বীকৃত ব্যাটসম্যান নেই বাংলাদেশের। আর তাই এ মুহূর্তে লাল-সবুজের আশা ভরসা লিটনকে ঘিরে। 

এর আগে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে মুমিনুলরা। টপ অর্ডারের ব্যর্থতায় দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৩৯ রান যোগ করতেই চার চারটি উইকেট হারায় টিম টাইগার্স। চতুর্থ দিনে সোমবার (২৯ নভেম্বর) বাংলাদেশের ভাগ্য অনেকটাই নির্ভর করছিল অভিজ্ঞ টাইগার সদস্য মুশফিকের ওপর। দিনের প্রথম ওভারের প্রথম বলেই হাসান আলিকে বাউন্ডারি মেরে দাপুটে শুরুও পেয়েছিলেন তিনি।

কিন্তু তৃতীয় বলেই বোল্ড হন মুশি। সমর্থকদের হতাশা বাড়িয়ে ৩৩ বলে ১৬ রান করে সাজঘরে ফিরে গেছেন তিনি।

এদিকে, মুশফিককে হারানোর পর লিটনের সঙ্গে দলের হাল ধরেছিলেন অভিষিক্ত ক্রিকেটার ইয়াসির আলী রাব্বি। ৭২ বলে ৩৬ রান করে এর মধ্যেই হাত খুলে খেলার ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন। কিন্তু তারপরই যেন বিপদটা ঝড়ের বেগে এল।

শাহিনের বাউন্সার সরাসরি গিয়ে আঘাত হানে ইয়াসিরের হেলমেটে। এরপর কয়েকটা বল খেললেও শেষ পর্যন্ত মাঠ ছেড়ে যেতে বাধ্য হন তরুণ এই টাইগার ব্যাটার। সবশেষ খবরে জানা যায়, মাথায় আঘাত লেগে মাঠ ছেড়ে যাওয়া ইয়াসির আলি রাব্বি আর মাঠেই নামতে পারবেন না। তার পরিবর্তে কনকাশন হিসেবে খেলছেন উইকেটকিপার ব্যাটার নুরুল হাসান সোহান। রাব্বির মাথায় স্ক্যান করার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন : মাথায় বল লেগে হাসপাতালে ইয়াসির, কনকাশন সোহান

এদিকে, সাজিদ খানের এক গুগলিতে পরাস্ত হয়েও রিভিউ নিয়ে সে যাত্রায় বেঁচে গিয়েছিলেন লিটন। তবে মিরাজের ক্ষেত্রে অবশ্য ভাগ্য তেমন সহায় হলো না। সাজিদের ঘূর্ণি বুঝতে ভুল করলেন, বল সোজা গিয়ে লাগল মিরাজের প্যাডে। রিভিউ নিয়েও লাভ হয়নি। ৪৪ বলে ১১ রান করে ফিরে গেছেন মিরাজ।

এ মুহূর্তে ৩২ রান নিয়ে ক্রিজে রয়েছেন লিটন দাস এবং ইয়াসির আলীর কনকাশন হিসেবে নামা নুরুল হাসান সোহান। তবে বেশ কয়েকবার আউট হতে হতেও বেঁচে গেছেন লিটন। বাংলাদেশের ইনিংস কতটা লম্বা হবে, আর পাকিস্তানের সামনে কত বড় টার্গেট দাঁড় করাতে পারবে টিম টাইগার্স, সেটি সম্পূর্ণ নির্ভর করছে এই জুটির ওপর। 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *